শুক্রবার, ২১ Jun ২০২৪, ০৮:০৭ অপরাহ্ন

সংবাদ শিরোনাম :
বেনজীর দোষী সাব্যস্ত হলে দেশে ফিরতেই হবে: কাদের কথা, কবিতা,সংগীত ও নৃত্যে রবীন্দ্র -নজরুল জয়ন্তী ১৪৩১ উদযাপন ডেঙ্গু : মে মাসে ১১ জনের মৃত্যু, হাসপাতালে ৬৪৪ প্রধানমন্ত্রীর উপ-প্রেস সচিব হতে পারে আওয়ামী লীগের ত্যাগী নেতা ফখরুল ইসলাম প্রিন্স নওগাঁর মান্দায় নিয়ম-বহির্ভূত রেজুলেশন ছাড়াই উপজেলার একটি প্রাথমিক স্কুলের টিন বিক্রির অভিযোগ আর্তনাদ করা সেই পরিবারের পাসে IGNITE THE NATION ঘূর্ণিঝড় রেমালের তান্ডবে ক্ষতিগ্রস্ত শরণখোলা ও সুন্দরবন নওগাঁর শৈলগাছী ইউনিয়ন পরিষদের ২০২০০৪-২০২৫ অর্থবছরের উন্মুক্ত বাজেট ঘোষণা নরসিংদী মেহেরপাড়া ইউনিয়ন পরিষদের সাবেক ইউপি চেয়ারম্যানকে কুপিয়ে হত্যা কালাইয়ে সহিদুল হত্যা মামলায় দশজনের যাবজ্জীবন
রতিশ চন্দ্র ভৌমিক বাবু সোনাকে অক্ষত অবস্থায় উদ্ধারের দাবীতে ডিমলায় মানববন্ধন

রতিশ চন্দ্র ভৌমিক বাবু সোনাকে অক্ষত অবস্থায় উদ্ধারের দাবীতে ডিমলায় মানববন্ধন

নীলফামারী ডিমলা প্রতিনিধি:

জাপানি নাগরিক ওসি কুনিও ও মাজারের খাদেম রহমত আলী হত্যা মামলায় সরকার পক্ষের প্রধান আইনজীবী ও রংপুর বিশেষ জজ আদালতের পাবলিক প্রসিকিউটর (পিপি) রতিশ চন্দ্র ভৌমিক বাবু সোনা শুক্রবার সকাল থেকে নিখোঁজ হন। এখন পযন্ত তার কোন সন্ধান পায়নি পুলিশ।
এডভোকেট রতিশ চন্দ্র ভৌমিক বাবু সোনাকে অপহরনের নিন্দা ও তাকে অক্ষত অবস্থায় উদ্ধারের দাবীতে নীলফামারীর ডিমলায় মানববন্ধন করেছেন বাংলাদেশ পুজাঁ উদ্যাপন পরিষদ ও বাংলাদেশ হিন্দু বৌদ্ধ খৃষ্টান ঐক্য পরিষদ ডিমলা উপজেলা শাখা। রোববার বিকালে উপজেলা শহরের স্মৃতি অ¤øান চত্তরে ঘন্টা ব্যাপী মানববন্ধন করেন কয়েক শত নেতা কর্মী।
মানববন্ধনে বক্তব্য রাখেন, বাংলাদেশ পুজাঁ উদ্যাপন পরিষদ ডিমলা উপজেলা শাখার সভাপতি মহিত কুমার সিংহ রায়, বাংলাদেশ হিন্দু বৌদ্ধ খৃষ্টান ঐক্য পরিষদ ডিমলা উপজেলা শাখার সভাপতি নিরেন্দ্র নাথ নিরু, বাংলাদেশ পুজাঁ উদ্যাপন পরিষদ ডিমলা উপজেলা শাখার সাধারণ সম্পাদক শৈলেন চন্দ্র রায়, যুগ্ন সাধারণ সম্পাদক নিতাই কুমার সিংহ রায়, বাংলাদেশ হিন্দু বৌদ্ধ খৃষ্টান ঐক্য পরিষদ নাউতার ইউনিয়ন শাখার সভাপতি প্রতিকুল চন্দ্র রায় পলক, বালাপাড়া ইউনিয়ন সভাপতি দেবন্দ্র নাথ চক্রবর্তী, সুভাষ চন্দ্র সরকার, আওয়ামীলীগ নেতা মহুবর রহমান প্রমূখ। এ সময় বক্তরা বলেন, পুলিশ প্রশাসন সাত দিনের মধ্যে এডভোকেট রতিশ চন্দ্র ভৌমিক বাবু সোনাকে অক্ষত অবস্থায় উদ্ধার করতে না পারলে এরচেয়ে কঠিন পদক্ষেপ গ্রহন করা হবে।

 

আওয়ামী লীগ নেতা ও আইনজীবী অ্যাডভোকেট রথিশ কেন নিখোঁজ হলো, কারা এর সঙ্গে জড়িত, কিংবা কেউ কি অপহরণ করেছে, অপহরণের নেপথ্যের কারণই বা কী, জঙ্গিদের বিপক্ষে আইনজীবী অবস্থান নেয়ার কারণ কী তার কাল নাকি ডিমলা জমিদারের রাজ দেবোত্তর সম্পত্তি সাড়ে ৯ একর জমি দখলের বিরোধের কারণে নিখোঁজ। এ নিয়ে নগরজুড়ে চলছে ব্যাপক আলোচনা ও গুঞ্জন।
যেসব বিষয় মাথায় নিয়ে অভিযান চলছে
১. রতীশ ভৌমিক কেন্দ্রীয় জামায়াত নেতা এ টি এম আজহারুল ইসলামের মানবতাবিরোধী অপরাধের মামলায়ও সাক্ষী ছিলেন। ওই মামলার রায়ে আজহারুলের ফাঁসির আদেশ হয়েছে। জামায়াত নেতা আজহারুলের বিরুদ্ধে অভিযোগের মধ্যে ছিল ১৯৭১ সালের ২৪ মার্চ ১১ জনকে অপহরণ করে রংপুর সেনানিবাসে নিয়ে এক সপ্তাহ আটকে রেখে নির্যাতনের পর ৩ এপ্রিল দখিগঞ্জ শ্মশানে নিয়ে নির্বিচারে গুলি করা। তাঁদের মধ্যে আইনজীবী রতীশের বাবা দীনেশ চন্দ্র ভৌমিক ওরফে মন্টু ডাক্তার ভাগ্যক্রমে বেঁচে যান। এই অভিযোগের পক্ষে দেওয়া সাক্ষ্যে রাষ্ট্রপক্ষের ১৩তম সাক্ষী রতীশ চন্দ্র ভৌমিক বলেন, তিনি ঘটনাটি তাঁর বাবার কাছে শুনেছেন। দীনেশ ১৯৮৯ সালে মারা যান।
২. রংপুর বিশেষ জজ আদালতের পাবলিক প্রসিকিউটর (পিপি) হিসেবে তিনি সরকারপক্ষে জঙ্গিদের বিরুদ্ধে দায়ের হওয়া দুটি মামলা পরিচালনা করেন। এর মধ্যে খাদেম হত্যা মামলায় গত ১৮ মার্চ সাত জঙ্গির মৃত্যুদণ্ডের রায় দেওয়া হয়। গত বৃহস্পতিবার ডেথ রেফারেন্স হাইকোর্টে পৌঁছার পরদিন এই আইনজীবী নিখোঁজ হলেন। এদিকে জাপানি নাগরিক কুনিও হোশি হত্যা মামলার সরকারপক্ষের প্রধান আইনজীবী ছিলেন রতীশ চন্দ্র ভৌমিক ওরফে বাবু সোনা। এ মামলায় গত বছরের ২৮ ফেব্রুয়ারি রায় ঘোষণা করা হয়েছে। রায়ে ৫ জনের মৃত্যুদণ্ডাদেশ ও একজনকে খালাস দেয়া হয়।
৩. নগরীর ডিমলা দেবত্তোর স্টেট নিয়ে বেশ কিছু দিন ধরে স্থানীয় হিন্দু সম্প্রদায়ের মধ্যে দ্বন্দ চলছিলো। এ ঘটনা নিয়ে হামলা-মামলার মত ঘটনাও ঘটেছে। গত বছরের ১৭ জুন নগরীর ডিমলা দেবত্তোর স্টেট পুকুরে মাছের পোনা অবমুক্ত করেন করা নিয়ে দেবত্তোর স্টেটের জমি সংক্রান্ত বিরোধকে কেন্দ্র করে এসময় প্রতিমন্ত্রী মশিউর রহমান রাঙ্গা ও জেলা প্রশাসকের গাড়ি বহরে আক্রমনের ঘটনা ঘটে। এ ঘটনায় হিন্দু কল্যাণের ট্রাষ্টি এডভোকেট রথীস চন্দ্র ভৌমিক বাবু সোনা বাদী হয়ে ঐদিনই মামলা দায়ের করেন। এছাড়া গত ৪ জুলাই পুলিশ বাদী হয়ে আরও একটি মামলা দায়ের করেন। এসব মামলায় গত বছরের ১২ জুলাই মাহিগঞ্জ ডিমলা এলাকা হতে এজাহার নামীয় ১১ জন আসামীকে গ্রেফতার করে পুলিশ।
এদিকে নিখোঁজ বাবু সোনার স্বজনরা জানায়, কিছুদিন ধরে তাঁকে প্রাণনাশের হুমকি দেওয়া হচ্ছিল।
রংপুর পূজা উদযাপন পরিষদের সভাপতি বনমালী পাল অভিযোগ করেন, বাবু সোনাকে হত্যার হুমকি দেওয়া হলেও প্রশাসন কোনও উদ্যোগ নেয়নি। জাপানি নাগরিক হত্যা মামলায় জঙ্গিদের ফাঁসির আদেশ হওয়ার পর ৩/৪ দিন বাসায় পুলিশ পাহারা দিয়েছে। এরপর পুলিশ তার কোনও নিরাপত্তা দেয়নি। ১৮ মার্চ মাজারের খাদেম রহমত আলী হত্যা মামলায় জঙ্গিদের ফাঁসি হওয়ার পরও তার কোনও নিরাপত্তা দেয়নি পুলিশ।
রংপুরের অতিরিক্ত জেলা পুলিশ সুপার মারুফ হোসেন গতকাল সাংবাদিকদের জানান, তারা জঙ্গিদের বিষয়সহ বিভিন্ন বিষয় নিয়ে তদন্ত শুরু করছেন। অচিরেই ভালো খবর দিতে পারবেন বলেও আশা প্রকাশ করেন তিনি

 

ভালো লাগলে নিউজটি শেয়ার করুন

© All rights reserved © 2011 VisionBangla24.Com
Desing & Developed BY ThemesBazar.Com