শুক্রবার, ২১ Jun ২০২৪, ০৮:৩৯ অপরাহ্ন

সংবাদ শিরোনাম :
বেনজীর দোষী সাব্যস্ত হলে দেশে ফিরতেই হবে: কাদের কথা, কবিতা,সংগীত ও নৃত্যে রবীন্দ্র -নজরুল জয়ন্তী ১৪৩১ উদযাপন ডেঙ্গু : মে মাসে ১১ জনের মৃত্যু, হাসপাতালে ৬৪৪ প্রধানমন্ত্রীর উপ-প্রেস সচিব হতে পারে আওয়ামী লীগের ত্যাগী নেতা ফখরুল ইসলাম প্রিন্স নওগাঁর মান্দায় নিয়ম-বহির্ভূত রেজুলেশন ছাড়াই উপজেলার একটি প্রাথমিক স্কুলের টিন বিক্রির অভিযোগ আর্তনাদ করা সেই পরিবারের পাসে IGNITE THE NATION ঘূর্ণিঝড় রেমালের তান্ডবে ক্ষতিগ্রস্ত শরণখোলা ও সুন্দরবন নওগাঁর শৈলগাছী ইউনিয়ন পরিষদের ২০২০০৪-২০২৫ অর্থবছরের উন্মুক্ত বাজেট ঘোষণা নরসিংদী মেহেরপাড়া ইউনিয়ন পরিষদের সাবেক ইউপি চেয়ারম্যানকে কুপিয়ে হত্যা কালাইয়ে সহিদুল হত্যা মামলায় দশজনের যাবজ্জীবন
ডেঙ্গু : মে মাসে ১১ জনের মৃত্যু, হাসপাতালে ৬৪৪

ডেঙ্গু : মে মাসে ১১ জনের মৃত্যু, হাসপাতালে ৬৪৪

নিজস্ব প্রতিবেদক: দেশে ফের চোখ রাঙাচ্ছে এডিস মশাবাহী ডেঙ্গু জ্বর। শুধু চলতি মে মাসেই ৬৪৪ জন রোগী হাসপাতালে ভর্তি হয়েছেন। তাদের মধ্যে মৃত্যুবরণ করেছেন ১১ জন। আর গত ২৪ ঘণ্টায় সারাদেশে নতুন করে ভর্তি হয়েছেন ১৮ জন ডেঙ্গু রোগী। তবে এ সময় নতুন করে কোনো মৃত্যুর ঘটনা ঘটেনি।

 

শুক্রবার (৩১ মে) সন্ধ্যায় স্বাস্থ্য অধিদফতরের হেলথ ইমার্জেন্সি অপারেশন সেন্টার ও কন্ট্রোল রুম থেকে পাঠানো ডেঙ্গু বিষয়ক নিয়মিত প্রতিবেদনে এসব তথ্য জানানো হয়।

বিজ্ঞপ্তিতে বলা হয়, সারাদেশে গত ২৪ ঘণ্টায় ডেঙ্গু জ্বরে আক্রান্ত হয়ে হাসপাতালে ভর্তি হয়েছেন ১৮ জন। আক্রান্তদের মধ্যে ঢাকার দুই সিটি করপোরেশন এলাকার সাতজন রয়েছে। এছাড়া চট্টগ্রাম বিভাগে সাতজন, বরিশালে দুইজন এবং খুলনা বিভাগের দুইজন রয়েছেন।

 

চলতি বছরের ১ জানুয়ারি থেকে ৩১ মে পর্যন্ত সারাদেশে ডেঙ্গু আক্রান্ত হয়ে হাসপাতালে ভর্তি হয়েছে মোট দুই হাজার ৮৫৩ জন। যাদের মধ্যে এক হাজার ৭২৫ জন পুরুষ (৬০ দশমিক ৫০ শতাংশ) এবং এক হাজার ১২৮ জন নারী (৩৯ দশমিক ৫০ শতাংশ)। এসময়ে হাসপাতাল থেকে ছাড়া পেয়েছেন দুই হাজার ৭০৭ জন।

 

এদিকে মৃত ৩৬ জনের মধ্যে পুরুষ ১৭ জন (৪৭ দশমিক ২০ শতাংশ) এবং নারী ১৯ জন (৫২ দশমিক ৮০ শতাংশ)।

 

আর মাসভিত্তিক তথ্য বিশ্লেষণে দেখা যায়, চলতি বছরে সর্বোচ্চ এক হাজার ৫৫ জন আক্রান্ত ও ১৪ জন মারা যায়। ফেব্রুয়ারিতে ৩৩৯ জন আক্রান্ত ও তিনজন মারা যায়। মার্চ মাসে ৩১১ জন আক্রান্ত ও পাঁচজন মারা যায়। এপ্রিলে ৫০৪ আক্রান্ত ও তিনজনের মৃত্যু হয়। সর্বশেষ মে মাসে ৬৪৪ আক্রান্ত হয়েছে। এর মধ্যে ১১ জন মারা গেছেন।

 

প্রতি বছর বর্ষাকালে ডেঙ্গুর প্রকোপ দেখা দেয়। ২০২৩ সালের জুন মাস থেকে ডেঙ্গু পরিস্থিতি ভয়াবহ আকার ধারণ করে। গেল বছর দেশে তিন লাখ ২১ হাজার ১৭৯ জন রোগী হাসপাতালে ভর্তি হয়ে চিকিৎসা নেন। এর মধ্যে ঢাকায় এক লাখ ১০ হাজার আটজন এবং ঢাকার বাইরে চিকিৎসা নিয়েছেন দুই লাখ ১১ হাজার ১৭১ জন। আক্রান্তদের মধ্যে হাসপাতাল থেকে সুস্থ হয়ে বাড়ি ফিরেন তিন লাখ ১৮ হাজার ৭৪৯ জন। গত বছর এক হাজার ৭০৫ জন মানুষ মশাবাহিত এই রোগে মারা গেছেন। যা দেশের ইতিহাসে এক বছরে সর্বোচ্চ মৃত্যু।

 

এর আগে, ২০১৯ সালে দেশব্যাপী ডেঙ্গু জ্বরে আক্রান্ত হয়েছিলেন এক লাখ এক হাজার ৩৫৪ জন। ওই সময়ে চিকিৎসক-স্বাস্থ্যকর্মীসহ প্রায় ৩০০ জনের মৃত্যু হয়েছিল।

 

২০২০ সালে করোনা মহামারিকালে ডেঙ্গুর সংক্রমণ তেমন একটা দেখা না গেলেও ২০২১ সালে সারাদেশে ডেঙ্গু জ্বরে আক্রান্ত হন ২৮ হাজার ৪২৯ জন। ওই বছর ডেঙ্গুতে আক্রান্ত হয়ে ১০৫ জনের মৃত্যু হয়েছিল। এছাড়া ২০২২ সালে ডেঙ্গু নিয়ে মোট ৬২ হাজার ৩৮২ জন হাসপাতালে ভর্তি হয়েছিলেন। এছাড়া ২০২২ সালে মশাবাহিত রোগটিতে আক্রান্ত হয়ে ২৮১ জন মারা যান।

ভালো লাগলে নিউজটি শেয়ার করুন

© All rights reserved © 2011 VisionBangla24.Com
Desing & Developed BY ThemesBazar.Com