শনিবার, ২৪ অক্টোবর ২০২০, ০৭:৩৮ অপরাহ্ন

মোংলায় স্কুলের খেলার মাঠ দখল করে দোকান নির্মাণ

মোংলায় স্কুলের খেলার মাঠ দখল করে দোকান নির্মাণ

মোংলা প্রতিনিধি: মোংলায় খোনকারের বেড় সরকারি প্রাথমিক বিদ্যালয়ের ছাত্র/ছাত্রীদের খেলার মাঠ দখল করে দোকান নির্মাণ করার অভিযোগ উঠেছে শিক্ষকসহ স্থানীয় প্রভাবশালীদের বিরুদ্ধে। শুধু তাই নয় স্কুলের প্রধান শিক্ষক ও স্কুল ম্যানেজিং কমিটির সহায়তায় দোকানপাট নির্মাণসহ মাঠটি ধীরে ধীরে দখলে নিচ্ছে প্রভাবশালী একটি মহল বলে স্থানীয়দের অভিযোগ। করোনাকালীন সময় স্কুল বন্ধ থাকায় এ সুযোগকে কাজে লাগিয়েছে এসকল দখলবাজরা। দোকান নির্মানের কারনে বিদ্যালয়টির মাঠ সংকীর্ণ হয়ে গেছে, ফলে শিক্ষার্থীরা খেলাধুলা করতে সমস্যায় পরতে হবে। প্রধান শিক্ষক ও কমিটির সদস্যদের এ সকল কর্মকান্ড নিয়ে ক্ষুব্ধ এলাকাবাসী।
জানা যায়, মোংলা উপজেলার ঐতিহ্যবাহী খানজাহান আলী বাজার সংলগ্ন খোনকারের বেড় সরকারি প্রাথমিক বিদ্যালয়টি অবস্থিত। বর্তমানে স্কুলটির খেলার মাঠ দখল করে দোকান ঘর নির্মাণের অভিযোগ উঠেছে বিদ্যালয়ের প্রধান শিক্ষক কনক প্রসাদ রায় ও সভাপতি আলামিন শেখ’র বিরুদ্ধে। স্কুলের একাধিক শিক্ষার্থী এর প্রতিকার চেয়ে বিভিন্ন লোকের কাছে ধরনা দিলেও কোন প্রতিকার হচ্ছেনা এবং উপজেলা শিক্ষা কর্মকর্তাও কোন ব্যাবস্থা না নেয়ায় তারও সম্পৃক্ততা থাকতে পারে বলেও অভিযোগ অনেকের।
স্থানীয় সূত্রে জানা যায়, ১৯৫৭ সালের তৈরী পুরানো এ বিদ্যালয়ের সামনে মনোরম পরিবেশে সুন্দর একটি খেলার মাঠ রয়েছে। মাঠের দক্ষিণ পাশ দিয়ে এলাকার বিভিন্ন জায়গায় যাতায়াতের জন্য একটি সড়কও রয়েছে। এ সড়কের পাশেই স্কুলের জায়গায় স্থানীয় প্রভাবশালীরা খেলার মাঠ দখলে নিয়ে দোকান ঘর নির্মাণ করে ভাড়া দেয়ার কারনে লোকজনের চলাচলে বিঘ্ন সৃস্টি হচ্ছে। করোনার কারনে প্রতিষ্ঠান বন্ধ থাকায় স্কুলের শিক্ষার্থীরা দোকান ঘর নির্মাণে বাধা প্রদান করতে পারছেনা। এছাড়া প্রধান শিক্ষকের বিরুদ্ধে রয়েছে গুরুতর নানা অভিযোগ। তিনি আগেই বিদ্যালয়-কাম-সাইক্লোন শেল্টারের পিছন থেকে দুইটি ঘর তৈরী করে ভাড়া দিয়ে হাতিয়ে নিচ্ছে মোটা অংকের টাকা। এছাড়া গত অর্থ বছরের স্কুল সংস্কার, স্লিপ ও প্র্যাকের ২ লাখ, ৮০ হাজার টাকা কোন কাজ না করে আত্নসাত করেছে বলেও অভিযোগ রয়েছে তার বিরুদ্ধে।
স্থানীয় বাসিন্দারা বলেন, ছাত্র/ছাত্রীদের খেলার মাঠ দখল করে দোকান ঘর তৈরি করার ফলে স্কুলের মাঠও বিনষ্ট হচ্ছে। এতে শিশুদের বিনোদনে বিঘ্ন ঘটবে। তারা আরও বলেন, সাইক্লোন শেল্টার মানুষের দুর্যোগের আশ্রয়স্থল। স্কুলের সামনে দোকান ঘর তৈরী হলে দুর্যোগের সময় উপকুলীয় অঞ্চলের মানুষ সেখানে আশ্রায়ের জন্য যেতেও সমস্যায় পড়তে হবে। এসব বিষয়ে ম্যানেজিং কমিটির সভাপতিকে জিজ্ঞেস করলেও তিনি কোন গুরুত্ব দিচ্ছে না। আমরা এলাকাবাসী এসব অনিয়ম ও খেলার মাঠ দখলের কার্যক্রম থেকে পরিত্রাণ চাই।
স্কুল ম্যানেজিং কমিটির সাবেক সভাপতি ও মিঠাখালী সাবেক ইউপি চেয়ারম্যান মোল্লা শাজাহান সাংবাদিকদের বলেন, মোল্লা পরিবারের পুর্ব পুরুষের পক্ষ থেকে এই স্কুল প্রতিষ্ঠার জন্য ৫০ শতক জমি দান করেছিল। ১৯৫৭ সালে এ স্কুলের ভবন নির্মান ও বাজার বসার ফলে মাঠটি অত্যান্ত ছোট, তারপরেও যদি আবার এখানে দোকান ঘর তোলা হয় তাহলে শিক্ষার্থীরা খেলাধুলা থেকে বঞ্চিত হবে। আমি মনে করি এটা তাদের খামখেয়ালিপনা ছাড়া আর কিছুই নয়। তিনি আরও বলেন, বিগত দিনগুলোতে এই স্কুলের অনেক সুনাম ছিলো। এখন তা দুর্নামে পরিণত হয়েছে। এলাকার সুশীল সমাজ এসব অনিয়ম থেকে মুক্তি ও সুষ্ঠু তদন্ত সাপেক্ষে বিচার দাবী করছেন।


খোনকারের বেড় সরকারী প্রাঃ বিদ্যালয়ের প্রধান শিক্ষক কনক প্রসাদ রায় এসব বিষয় এড়িয়ে গিয়ে বলেন, শনিবার স্কুলে গিয়ে খেলার মাঠ দখল করে দুইটি নতুন নির্মিত দোকান ঘর দেখতে পাই এবং সাথে সাথেই উপজেলা প্রাথমিক শিক্ষা কর্মকর্তাকে জানানো হয়েছে। তবে দোকান ঘর তৈরীর ব্যাপারে কিছুই জানেন না বলে জানায় এ প্রধান শিক্ষক। স্কুল ম্যানেজিং কমিটি সভাপতি আলামিন শেখ বলেন, করোনা সময় স্কুল বন্ধ থাকায় প্রতিষ্ঠানে কি হয়েছে তা জানা নাই তবে দোকান ঘর নির্মানের সাথে তিনি জড়িত নয় বলে জানায় তিনি।
জেলা শিক্ষা অফিসার মুহাম্মাদ শাহ-আলম বলেন, বিদ্যালয়ের খেলার মাঠ নষ্ট করে দোকান ঘর নির্মাণ করা যাবেনা এবং বিদ্যালয়-কাম-সাইক্লোন শেল্টারের রুম বা অবসিষ্ট জমি দখল করে অন্য কোন কার্যক্রম করা আইন পরিপন্থী। এ ব্যাপারে এখনও কোন অভিযোগ পাইনি। তবে অভিযোগ পেলে আইনানুগ ব্যাবস্থা  গ্রহণ করা হবে।
মোংলা উপজেলা নির্বাহী অফিসার (ইউএনও) কমলেশ মজুমদার জানান, স্কুল অথবা কোন খেলার মাঠ বন্ধ করে শুধু দোকন নয় অন্য কোন কার্যক্রমও কেউ করতে পারবে না। এব্যাপারে কোন অভিযোগ পাইনী তবে খোঁজ খবর নেয়া হচ্ছে। কোমলমতি শিশুদের খেলার মাঠ বন্ধ করে দোকান নির্মান হলে কঠোর ব্যাবস্থা নেয়া হবে বলে জানায় নির্বাহী কর্মকর্তা।

ভালো লাগলে নিউজটি শেয়ার করুন

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

বিশ্বজুড়ে করোনাভাইরাস

বাংলাদেশে

আক্রান্ত
১৭৮,৪৪৩
সুস্থ
৮৬,৪০৬
মৃত্যু
২,২৭৫

বিশ্বে

আক্রান্ত
৪২,৫৮৯,৩৮৩
সুস্থ
৩১,৪৭৭,৮৩৪
মৃত্যু
১,১৫০,৮৩৩
© All rights reserved © 2014 VisionBangla24.Com
Desing & Developed BY ThemesBazar.Com