সোমবার, ১৫ Jul ২০২৪, ০২:৫৫ পূর্বাহ্ন

সংবাদ শিরোনাম :
বেনজীর দোষী সাব্যস্ত হলে দেশে ফিরতেই হবে: কাদের কথা, কবিতা,সংগীত ও নৃত্যে রবীন্দ্র -নজরুল জয়ন্তী ১৪৩১ উদযাপন ডেঙ্গু : মে মাসে ১১ জনের মৃত্যু, হাসপাতালে ৬৪৪ প্রধানমন্ত্রীর উপ-প্রেস সচিব হতে পারে আওয়ামী লীগের ত্যাগী নেতা ফখরুল ইসলাম প্রিন্স নওগাঁর মান্দায় নিয়ম-বহির্ভূত রেজুলেশন ছাড়াই উপজেলার একটি প্রাথমিক স্কুলের টিন বিক্রির অভিযোগ আর্তনাদ করা সেই পরিবারের পাসে IGNITE THE NATION ঘূর্ণিঝড় রেমালের তান্ডবে ক্ষতিগ্রস্ত শরণখোলা ও সুন্দরবন নওগাঁর শৈলগাছী ইউনিয়ন পরিষদের ২০২০০৪-২০২৫ অর্থবছরের উন্মুক্ত বাজেট ঘোষণা নরসিংদী মেহেরপাড়া ইউনিয়ন পরিষদের সাবেক ইউপি চেয়ারম্যানকে কুপিয়ে হত্যা কালাইয়ে সহিদুল হত্যা মামলায় দশজনের যাবজ্জীবন
“নৌকা যেখানে যোগাযোগের অন্যতম মাধ্যম হয়ে দাঁড়িয়েছে”

“নৌকা যেখানে যোগাযোগের অন্যতম মাধ্যম হয়ে দাঁড়িয়েছে”

রিয়াদ হোসেন, সাতক্ষীরা: বর্তমান সময়ে কথাটা শুনতে কিছুটা আজব লাগলেও সত্যিকারর্থে তালা উপজেলার খেশরা ইউনিয়নের অধিকাংশ মানুষকে বর্ষা মৌসুমে নৌকা চড়ে যাতায়াত করতে হয় এবং খেশরা ইউনিয়নের প্রান্তসীমা অতিক্রম করতে হয়ে নৌকার উপর নির্ভর করে। ইটের রাস্তার অভাবে শাহপুর-কলাগাছি গ্রাম থেকে সাতক্ষীরা জেলা সদরসহ বুধহাটা, দলুয়া, পাটকেলঘাটাতে যাতায়াত করার একমাত্র মাধ্যম নৌকা।প্রতাক্ষ ভাবে উপস্থিত হয়ে দেখা যায়, বর্ষাকালে তারা অন্য জগতের বাসিন্দা হয়ে যায় ইউনিয়নের মুড়াগাছা, কলাগাছি, কুলপোতা ,রাজাপুর, শাহপুরসহ আশপাশের গ্রাামের মানুষ। বর্ষাকালে পাকা রাস্তার অভাবে ব্যাবসা বানিজ্যে করতে চরম সমস্যার মুখে পড়তে হয় তাদের কিংবা বিভিন্ন সেবা কেন্দ্রে গিয়ে দৈনন্দিন প্রয়োজন মেটাতে অক্ষম হয়ে পড়ে তারা, ফলে বাধ্য হয়ে নৌকার মাধ্যমে পানি পথে চলাচল করতে হয় তাদের। অনেক সময় দুর্ঘটনার স্বীকার হতে হয় তাদের।স্থানীয় জনপ্রতিনিধির কাছে জানলে তিনি বলেন, ইউনিয়নের শাহপুর থেকে মষিয়াডাঙ্গা পর্যন্ত প্রায় সাড়ে ৩ কিলোমিটার ও কলাগাছি থেকে শালিখা বাজার পর্যন্ত ৩ কিলোমিটার রাস্তা কাঁচা হওয়ায় বর্ষা মৌসুমে অনেক কাদার সৃষ্টি হয়। এতে এসব রাস্তা দিয়ে হেটে বা যানবাহন নিয়ে চলাচলের কোন সুযোগ না থাকায় মানুষ নৌকায় চড়তে বাধ্য হয়। মুড়াগাছা গ্রামের বাসিন্দা শারাফাত মোড়লের কাছে জানলে তিনি বলেন, বর্ষাকালে সাতক্ষীরায় যেতে হলে নৌকায় যাওয়া ছাড়া অন্য কোন পথ থাকে না। আমাদের গ্রামটি যেন বর্ষা মৌসুমে বিচ্ছিন্ন হয়ে যায় আধুনিকায়ন এই সমাজ থেকে। তখন নৌকায় আমাদের চলাচলের একমাত্র ভরসা হয়ে দাঁড়ায়। এতে যেমন ঝুঁকি নিয়ে চলতে হয় তেমন সময়ও নষ্ট হয়। আব্বাস আলী নামের একজন মুদি ব্যবসায়ী জানান, কুল্ল্যা-বুধহাটা থেকে দোকানের মাল আনতে গেলে ট্রলারেই আনতে হয়।অনেক সময় মালামালে পানি লেগে নষ্ট হয়ে যায়। এছাড়া অত্র গ্রামগুলোয় বর্ষা মৌসুমে বাড়ি থেকে বের হতে গেলে নৌকার কোন বিকল্প নেই। এই আধুনিক বাংলাদেশে আশপাশের ইউনিয়নগুলোতে যে পরিমানে উন্নয়নের ছোঁয়া লেগেছে সেই তুলনায় খেশরা ইউনিয়নের উন্নায়ন অতি সমান্য।উক্ত রাস্তা গুলো সংস্কার করার জন্য তারা স্থানীয় প্রশাসনের হস্থক্ষেপ কামনা করে।যাতে করে তারা এই দুর্ভোগ থেকে অবসান পায়।।।

ভালো লাগলে নিউজটি শেয়ার করুন

© All rights reserved © 2011 VisionBangla24.Com
Desing & Developed BY ThemesBazar.Com