বুধবার, ২৪ এপ্রিল ২০২৪, ০৫:৫২ পূর্বাহ্ন

স্মার্ট বাংলাদেশ গড়তে প্রয়োজন স্মার্ট নাগরিক : শিক্ষামন্ত্রী

স্মার্ট বাংলাদেশ গড়তে প্রয়োজন স্মার্ট নাগরিক : শিক্ষামন্ত্রী

নিজস্ব প্রতিবেদক : শিক্ষামন্ত্রী ডা. দীপু মনি বলেছেন, স্মার্ট বাংলাদেশ গড়তে প্রয়োজন স্মার্ট নাগরিক। আর নতুন প্রজন্মের শিক্ষার্থীরাই হবে সেই স্মার্ট বাংলাদেশের স্মার্ট নাগরিক।

 

আজ মঙ্গলবার (১৪ মার্চ) সকালে চাঁদপুর শিল্পকলা একাডেমিতে আয়োজিত জেলা প্রশাসন অলিম্পিয়াডের সমাপনী ও পুরস্কার বিতরণী অনুষ্ঠানে তিনি এ কথা বলেন।

 

 

তিনি বলেন, স্মার্ট নাগরিক মানে, নিজে নিজে চিন্তা করতে শেখা, সৎ, পরমশহিষ্ণু, অসাম্প্রদায়িক, মানবিক, বিজ্ঞান ও প্রযুক্তিতে দক্ষ। আর নতুন শিক্ষা পদ্ধতি শিক্ষার্থীদের এগুলোই শেখাবে। এ ক্ষেত্রে নতুন শিক্ষাক্রম যেমন ভূমিকা রাখবে তেমনি এই ধরনের অলিম্পিয়াড প্রতিযোগিতা শিক্ষার্থীদের এগিয়ে নেবে এবং দেশ-বিদেশে নানা সাফল্য অর্জনেও ভূমিকা রাখবে।

 

শিক্ষার্থীদের উদ্দেশে মন্ত্রী বলেন, চতুর্থ শিল্প বিপ্লবে আমরা অংশীদার হতে পারব এবং এ বিপ্লবের সফল অংশীদার হয়ে আমরা দেশকে এগিয়ে নিয়ে যেতে পারি। যেহেতু আমরা এখন ডিজিটাল বাংলাদেশে আছি, সেহেতু আমাদের পক্ষে সেটা সম্ভব। এ চতুর্থ শিল্প বিপ্লবের যে প্রযুক্তিগুলো যেমন রোবোটিক্স আর্টিফিশিয়াল ইন্টেলিজেন্স (কৃত্রিম বুদ্ধিমত্তা), ন্যানো টেকনোলজিসহ বিভিন্ন বিষয় শিখতে হবে এবং দক্ষ হতে হবে। তাই এখনই সময় এখন থেকেই নিজেদের তৈরি করতে হবে। আজকে আমরা যারা আছি আমরা হয়তো অনেক কিছুই দেখে যেতে পারবো না। কিন্তু যারা এখন শিক্ষার্থী আছো তোমরা যখন বড় হবে তোমাদের কাজের জগত আমাদের কাজের জগতের চেয়ে অনেক ভিন্ন হবে। সেখানে এ প্রযুক্তিগুলো লাগবে। সেই কারণে আমরা চাই নতুন প্রজন্মের শিক্ষার্থীরা এখন থেকেই শিখে।

 

 

 

ডা. দীপু মনি বলেন, আমাদের মাথার ভেতর সৃষ্টিকর্তা একটি মস্তিষ্ক দিয়েছেন। সেই মস্তিষ্ক একটি সুপার কম্পিউটার। এ কম্পিউটারের সমান হতে হলে বিশ্বের সবচেয়ে শক্তিশালী যে কম্পিউটার আছে তা আরও ১০ রাখ গুণ বেশি পাওয়ারফুল হতে হবে। সুতরাং বুঝতে হবে আমরা আমাদের মাথায় অসম্ভব দামি একটি কম্পিউটার নিয়ে ঘুরছি। তাই এ কম্পিউটারকে কাজে লাগাতে হলে আমাদের তথ্যপ্রযুক্তি শিখতে হবে, প্রযুক্তি উদ্ভাবন করতে হবে।

 

অনুষ্ঠানে উপস্থিত ছিলেন চাঁদপুরের জেলা প্রশাসক কামরুল হাসান, পুলিশ সুপার মিলন মাহমুদ, পৌর মেয়র জিল্লুর রহমান জুয়েল, চাঁদপুর সরকারি কলেজের অধ্যক্ষ প্রফেসর অসিত বরণ দাস, ফরিদগঞ্জ উপজেলা পরিষদের চেয়ারম্যান জাহিদুল ইসলাম রোমান, সদর উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তা সানজিদা শাহনাজ, সদর মডেল থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা (ওসি) মুহাম্মদ আব্দুর রশিদ, পুরান বাজার ডিগ্রি কলেজের অধ্যক্ষ রতন কুমার মজুমদারসহ বিভিন্ন শিক্ষা প্রতিষ্ঠানের শিক্ষক ও শিক্ষার্থীরা।

ভালো লাগলে নিউজটি শেয়ার করুন

© All rights reserved © 2011 VisionBangla24.Com
Desing & Developed BY ThemesBazar.Com