সোমবার, ৩০ জানুয়ারী ২০২৩, ১০:১৬ পূর্বাহ্ন

আশুলিয়া আবাসিক এলাকায় অনুমতিবিহীন কারখানা: আতংকে এলাকাবাসী

আশুলিয়া আবাসিক এলাকায় অনুমতিবিহীন কারখানা: আতংকে এলাকাবাসী

আশুলিয়ার বেরন তেতুলতলা পপুলার হাউজি; মাঠে আবাসিক এলাকায় গড়ে উঠেছে ডাইং ওয়াশিং কারখানা এখানে রয়েছে ব্রয়েলার ওয়াশিং মেশিন বিভিন্ন কারখানার মালা মাল সাব কন্টাকে এনে কাজ করেন বলে সুত্রে জানায়। এই কারখানার আশে পাশে প্রায় চার শতাদিক আবাসিক বসতবাড়ি রয়েছে। অনুমতি বিহিন ভাবে আবাসিক এলাকায় কারখানা তৈরী করে গেটে কারখার নামের ছাইন ভোটের পরিবতে ইউনিয়নের ট্ডে লাইসেন কারখার গেটে জুলিয়ে এর উপর ভিত্তি করে এ কারখানাটি চালিয়ে যচ্ছেন জয়নাল নামে এক বেক্তি। কারখানা চলাকালিন সময় ব্রয়লারের শব্দে যেমন শব্দ দূশন হয় তেমনি ঔ কারখানার সকল তুলো বিভিন্ন স্হান দিয়ে বেড়িয়ে আশে পাশের বাড়ির বিভিন্ন দিক দিয়ে রুমে প্রবেশ করে বসবাসের অযোগ্য করে তোলে।

কারখানাটির কেমিক্যাল যুক্ত দূশিত পানি ময়লা আবজনায় দূর গন্ধে দূশিত হয়ে জন জীবনে অতিস্ঠ করে তোলে।আরএকটু বিষ্টি হলেই ময়লা আবজনা কেমিক্যাল যুক্ত পানি পুরো এলাকা নরধমায় পরিনিত হয়। এব্যাপারে মোঃফজলুল করিম (৪০)নামে এক বাড়ির মালিক জানান ঔ কারখানাটি পিছনে পচ্শিম পাশে আমার বাড়ি। আমি দিঘ আট বছর যাবদ বসবাস করে আসছি কিন্তু এখন আর এই কারখার জন্য বসবাস করা সমব্ব হচ্ছে না। গত দুই বছর যাবত এই কারখানা হওয়ার পর থেকে আমার ৫ তলা বিশিষ্ট বাড়ির ভাড়াটি শুন্য খালি পরে আছে আমার বাড়ির সামনে দূশিত পানি ময়লা এবং তুলো দিয়ে মনে হয় এটাও একটি কারখানা। ব্রয়লার মেশিনের বিকট শব্দে রাতে ঘুমানো দূশকর হয়ে পরে। আমি বার বার ঔ কারখানার মালিকে এ বিষয়ে ব্যাবস্হা নেয়ার অনুরুধ করলেও আমার কথা কিছুই মনে না করে কারখানাটি চালিয়ে যাচ্ছে।

 

এব্যাপারে জানার জন্য কারখানার মালিক জয়নাল সাহেবের মুঠো ফোনে ০১৬৭০-১৪০০১৫ নাম্বারে একাদিক বার ফোন করলে তাকে পাওয়া জায়নি। এলাকা বাসি জানানঃ আবাসিক এর ভিতর ওয়াশিং কারখানায় রয়েছে ব্রয়লার মেশিন বিভিন্ন কেমিক্যাল বিদুতিক সরজ্যাম সহ অব্যাবস্তাপনা যে কোন মুহুতে ঘটতে পারে বড় ধরনের দূরঘটনা। এরা সরকারি নিয়ম নিতি তোয়াক্কা না মেনে আবাসি এলাকায় সরকারী নয়ন জুলি খাল দখল ও বন্দ করে ঔ জমির উপর অনুমতি বিহিন ভাবে আবাসিক এলাকায় কারখানা তৈরি করে জন দূরভোগ সৃষ্টি করে নিজেদের আখের গোচ্ছে।এদের কারনে আশে পাশের বাড়ির মালিদের বাড়ি ছেড়ে অন্যত্রে চলে যাওয়ার মত অবস্থা হয়ে দাড়িয়াছে।আমরা আবাসিক এলাকার ভিতর কারখানা বন্দের দাবি জানিয়ে স্হানিয় পুলিশ প্রেশাসনের কাছে বিষয়টি তন্দত করে প্রয়োজনিয় ব্যাবস্থা গ্রহনে জোর দাবি জানায়।
আশুলিয়া থেকে শাহ আলম

ভালো লাগলে নিউজটি শেয়ার করুন

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

© All rights reserved © 2014 VisionBangla24.Com
Desing & Developed BY ThemesBazar.Com