বৃহস্পতিবার, ১৮ এপ্রিল ২০২৪, ১০:৪৫ পূর্বাহ্ন

অতিরিক্ত ব্রাশ করায় উপকারের তুলনায় ক্ষতিই বেশি

অতিরিক্ত ব্রাশ করায় উপকারের তুলনায় ক্ষতিই বেশি

দাঁত পরিষ্কার ও সমস্যা-মুক্ত রাখতে দিনে অন্তত দু’বার দাঁত ব্রাশ করা উচিত! এটাই সবাই মনে করেন। কিন্তু আপনি কি জানেন এই নিয়ম এখন অচল। এমনকি, প্রয়োজনের অতিরিক্ত দাঁত ব্রাশ করার কারণে উপকারের তুলনায় অপকারই বেশি হতে পারে। অনেকেই আছেন যারা মনে করেন প্রতিবার খাওয়ার পরই দাঁত ব্রাশ করা উপকারী। তাদের ধারণা এতে দাঁত পরিষ্কার থাকবে।

তবে একথা সবাই জানেন অতিরিক্ত কোনও কিছুই ভালো নয়। প্রয়োজনের তুলনায় বেশিবার ব্রাশ করার ফলে দাঁতের ক্ষতি হওয়ার অনেকটাই বেড়ে যায়।

সম্প্রতি একটি স্বাস্থ্য বিষয়ক সাইটে অতিরিক্ত দাঁত মাজার ক্ষতিকর দিকগুলি তুলে ধরা হয়।

চা বা কফি খাওয়ার পরপরই দাঁত ব্রাশ করা বেশ ক্ষতিকর। একইভাবে কোমল বা কার্বোনেইটেড পানীয় খাওয়ার পরপরই দাঁত ব্রাশ করা একদমই উচিত নয়। কারণ এ ধরনের পানীয় পান করার পরই ব্রাশ করা হলে এতে থাকা অ্যাসিড উপাদান দাঁতের এনামেল পুড়িয়ে ফেলতে পারে। আর ব্রাশ করার ফলে অ্যাসিড দাঁতের এনামেলের ভিতরে এটে যায়।

বিশেষজ্ঞদের মতে, দিনে প্রতিবার খাবার খাওয়ার পর দাঁত ব্রাশ করা মোটেও জরুরি নয়- দু’বারই যথেষ্ট। আর খাওয়ার পরই দাঁত ব্রাশ করা কতটা জরুরি তা নির্ভর করে কী ধরনের খাবার খাওয়া হয়েছে তার উপর। যদি অ্যাসিডিক খাবার- টক ফল বা কর্বোনেইটেড খাওয়ার খাওয়া হয়, তবে খাওয়ার পরপরই দাঁত ব্রাশ করা উচিত নয়। কারণ এতে উপকারের তুলনায় ক্ষতিই হবে বেশি। তাছাড়া প্রয়োজনের তুলনায় বেশি ব্রাশের ফলে দাঁতের উপরের স্তর ক্ষতিগ্রস্ত হয়। এতে ‘সেনসিটিভিটি’ বা দাঁত সিরসির করার সমস্যা দেখা দিতে পারে।

ভালো লাগলে নিউজটি শেয়ার করুন

© All rights reserved © 2011 VisionBangla24.Com
Desing & Developed BY ThemesBazar.Com